শিরোনাম

রোকনুজ্জামান  : জামালপুরের মেলান্দহ উপজেলার ঝাউগড়া ইউনিয়নের দহেরপাড়ায় চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের অংশ হিসেবে রাস্তার ব্রিজ নির্মাণ কাজের শুভ উদ্ভোধন করেন জামালপুর জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ঝাউগড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আঞ্জুমনোয়ারা বেগম হেনা।

জানা যায়, ঝাউগড়া ইউনিয়নের ফজলুল হক আকন্দ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় হতে হুমায়ুন ইঞ্জিনিয়ারের বাড়ি পর্যন্ত প্রায় ১ কিঃমিঃ রাস্তার পাকা করণ কাজ চলছে। চলমান কাজের অংশ হিসেবে শনিবার দুপুরে দহেরপাড়ায় প্রায় ১৮ লাখ টাকা বাজেটের একটি ব্রিজের নির্মাণ কাজের শুভ উদ্ভোধন করা হয়।

নির্মাণধীন এ ব্রিজের ঠিকাদারির কাজ পেয়েছেন এসএম মোয়াজ্জেম হোসন। শুভ উদ্ভোধনের সময় উপস্থিত ছিলেন, ১০ নং ঝাউগড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হাই বাচ্চু জামালপুর পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন সিরাজী, সহ-সভাপতি ছাইদুর রহমান, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম আফসারী, ইসলামপুর উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি জাকিউল ইসলাম সোনাহার, মিনহাজ আহাম্মেদ রাজ সহ অন্যান্যরা।

এ সময় ঠিকাদার এসএম মোয়াজ্জেম বলেন, এ কাজটি শেষ করার জন্য আমাকে ২ মাসের সময় দেওয়া হয়েছে।

আশা করি এর মাঝেই কাজ শেষ হবে। চলমান এ কাজটি শেষ হলে ওই এলাকার প্রায় ১৫ হাজার লোকজন উপকৃত হবে।

রবিউল আউয়াল রবি, ময়মনসিংহ ব্যুরোঃ
প্রতিষ্ঠার দুই বছরের মধ্যে প্রথমবারের মতো পাবলিক পরীক্ষাঅনুষ্ঠিত হচ্ছে ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে। শনিবার জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষার (জেএসসির) মধ্য দিয়ে পরিপূর্ণ যাত্রা শুরু করে দেশের ১১তম শিক্ষা বোর্ড-‘মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ড, ময়মনসিংহ।
সকালে বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. গাজী হাসান কামাল জানান, সকাল ১০টা থেকে এ বোর্ডে পরীক্ষা শুরু হয়।
চলবে দুপুর ১টা পর্যন্ত। ১২৫টি কেন্দ্রে ১ হাজার ৪শ ৯০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১ লাখ ৬৩ হাজার ৬৫২জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ৮০ হাজার ৮শ ৫৫জন ছাত্র ও ৮২ হাজার ৭শ ৯৭ জন ছাত্রী। ২০২০ সালে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাও এই বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত হবে।
ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর ও জামালপুর জেলার নিম্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এ বোর্ডের অধীনে রয়েছে।
তিনি আরো বলেন, নবগঠিত ময়মনসিংহ মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ড ডিজিটালে রূপান্তর হচ্ছে। উচ্চ মাত্রার ওয়াই-ফাই চালু করা হয়েছে বোর্ড অফিসে। শুরু থেকেই ই-জিপি টেন্ডার কার্যক্রম চালু করা হয়েছে।
ক্লোজ সার্কিট ক্যামরার আওতায় আনা হয়েছে বোর্ড অফিস। দ্রুত সেবা দেয়ার জন্য ই-ফাইলিং ও অনলাইন শিক্ষা প্রোফাইল কার্যক্রম চালু হয়েছে। নিয়ম-নীতি মেনেই স্কুল-কলেজের রেজিস্ট্রেশন, পরিদর্শন, নবায়ন, পাঠদান, স্বীকৃতি ও অনুমোদনের কাজ পরিচালিত হচ্ছে।
প্রস্তাবিত ১৭৫ জনবলের বিপরীতে মাত্র ২৯ জন (১৪ জন প্রেষণে, ১২ জন অস্থায়ী এবং ৩ জন আউটসোর্সিং) দিয়ে কার্যক্রম চলছে।
জনবলের তীব্র সংকটের কারণে অমানসিক কষ্ট করতে হচ্ছে। তবুও কাঙ্খিত সেবা দিতে পিছ পা হচ্ছেন না শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তারা। অতি জরুরি ভিত্তিতে জনবল নিয়োগ দেওয়া  প্রয়োজন।
সরকারী মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতি ময়মনসিংহ অঞ্চলের নব-নির্বাচিত সভাপতি ও বিদ্যাময়ী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নাছিমা আক্তার জানান, নতুন শিক্ষা বোর্ডে প্রথম জেএসসি পরীক্ষা গ্রহন করায় পুরো বিভাগবাসী আনন্দিত। আমরা সকলেই শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা গ্রহনে অঙ্গীকারবদ্ধ।
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও ময়মনসিংহ নাসিরাবাদ কলেজিয়েট স্কুলের প্রধান শিক্ষক আনোয়ার হোসেন বলেন, এ অঞ্চলের শিক্ষক সমাজ বোর্ড প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসছিল। ময়মনসিংহে বোর্ড না থাকায় সবচেয়ে বেশী কষ্টের শিকার হয়েছিল শিক্ষকরা।বোর্ড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শিক্ষকদের সীমাহীন কষ্ট ও দুর্ভোগের অবসান হয়েছে।
নতুন বোর্ডের পাবলিক পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হওয়ায় এ অঞ্চলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা দারুন খুশি।
২০১৫ সালের ১৩ অক্টোবর ময়মনসিংহ বিভাগ ঘোষণার পর ২৮ আগস্ট ২০১৭ সালে ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ড গঠনের প্রজ্ঞাপন জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বাংলাদেশের সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে এই শিক্ষা বোর্ড ৯ম। সকল শিক্ষা বোর্ডের মধ্যে ১১তম শিক্ষা বোর্ড।