রূপগঞ্জ প্রতিনিধি, প্রাণের দেশ :

রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩ নং ওয়ার্ড এর সদস্য পদপ্রার্থী  হাজী জুলহাস গতকাল ৪ অক্টোবর শুক্রবার গণসংযোগ করেছেন।

রূপগঞ্জ ইউনিয়নের গুতিয়াবো, মধ্যপাড়া, আগারপাড়া, বিলের টেক, টেকবাড়ী, দক্ষিণবাগসহ আশপাশের এলাকায় তিনি এ গণসংযোগ করেন।

 

এসময়, তার সাথে উপস্থিত ছিলেন হাজী মিজানুর রহমান মোল্লা, হাজী মানিক আলী, ফকির চাঁন, সাফিজ উদ্দিন,  আফসার উদ্দিন, হযরত আলী, হাজী সোলায়মান, আঃ রহমান, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আঃ আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক আরিফ খান জয়,  প্রমুখ।

ইউপি সদস্য প্রার্থী হাজী জুলহাস এলাকায় গণসংযোগকালে বলেন, রূপগঞ্জের ৩ নং ওয়ার্ড উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে বৈদ্যুতিক পাখাকে বিজয়ী করতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমি নির্বাচিত হলে এলাকায় জুয়া, মাদক ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে  প্রশাসনের সহযোগীতায় কঠোর ব্যবস্থা নিবো এবং রূপগঞ্জের মাটি ও মানুষের নেতা বীর প্রতীক গাজী গোলাম দস্তগীর মন্ত্রী মহোদয়ের হাতকে শক্তিশালী করবো ইনশাল্লাহ।

উল্লেখ্য , ১৪ অক্টোবর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।  উক্ত ৩ নং ওয়ার্ড এর ২টি ভোট কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ৪ হাজার ১৬জন।

মোঃ রবিউল আউয়াল রবি, ময়মনসিংহ ব্যুরো চীফ :

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজায় ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেছেন ময়মনসিংহ জেলা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন।
শনি ও রবিবার দিনভর তিনি ময়মনসিংহ, ফুলপুর, তারাকান্দা, ধোবাউড়া ও হালুয়াঘাট উপজেলার বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন।
এ সময় পুলিশ সুপার স্ব স্ব এলাকার পূজা মন্ডপ কমিটির নেতা এবং স্থানীয়দের সাথে মতবিনিময় করেন। নিরাপদে নির্বিঘ্নে সবাই যেনো পূজা সম্পন্ন করতে পারেন, সেজন্য সকলকে আশ্বস্ত করেন তিনি।এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এ নেওয়াজী, জয়ীতা শিল্পী,ডিবির ওসি শাহ্ কামাল আকন্দসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তাগণ।
পরিদর্শনের সময় পুলিশ সুপারের পক্ষ থেকে বিভিন্ন মন্ডপে কিছু প্রসাদের উপহার ‍তুলে দেয়া হয়।

নিজস্ব সংবাদদাতা, প্রাণের দেশ :

রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী  আলহাজ্ব মো. ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া গতকাল ৪ অক্টোবর শুক্রবার গণসংযোগ করেছেন।

রূপগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিণবাগ, বাঘবের, গোপালেরটেক, রূপগঞ্জ, ব্রাহ্মণখালীসহ আশপাশের এলাকায় তিনি এ গণসংযোগ করেন।

এসময় তারাবো পৌরসভার মেয়র হাসিনা গাজী, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মশিউর রহমান তারেক, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মুশফিকুর রহমান রিপন, আওয়ামীলীগ নেতা ওবায়দুল মজিদ জুয়েল, আব্দুল আলীম সরকার, ফিরোজ মিয়া, আব্দুল ওহাব, শাহজাহান ভুঁইয়া, মোমেন মোল্লা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি মনিরুজ্জান ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আঃ আজিজ ও সাধারণ সম্পাদক আরিফ খান জয়, যুবলীগ নেতা মোহন মিয়া, রাকিবুল ইসলাম রাজু, বিনাপ্রতিন্দ্বিতায় নির্বাচিত ইউপি সদস্য রিটন প্রধান, ইউপি সদস্য হাজী ওসমান গণি ভুঁইয়া খোকন প্রমুখ।

চেয়ারম্যান প্রার্থী ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া বলেন, রূপগঞ্জের উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে।

উল্লেখ্য, ১৪ অক্টোবর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ১৭টি ভোট কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা ৩৩ হাজার ১৩৭জন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি, প্রাণের দেশ :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় এক কিশোরীর মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গতকাল শনিবার রাতে উপজেলার পানিশ্বর ইউনিয়নের বিটঘর গ্রামের একটি জমি থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। ওই কিশোরীর নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশের ধারণা, দুই থেকে তিন দিন আগে ওই কিশোরীকে ধর্ষণের পর পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে ওই এলাকায় ফেলে গেছে দুর্বৃত্তরা। পরিচয় গোপন করতে তার মাথা কেটে নেওয়া হয়েছে বলেও ধারণা পুলিশের।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, গতকাল বিকেলে বিটঘর গ্রামের এক কৃষক জমিতে সার দিতে যান। ওই সময় সেখানে মাথাবিহীন বিবস্ত্র এক কিশোরীর লাশ দেখতে পান তিনি। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে ওই জমিতে লাশ দেখতে ভিড় জমায় গ্রামবাসী। পুলিশ খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে লাশ উদ্ধার করে।

সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাহাদাত হোসেন টিটো জানান, কেউ পরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে। তবে প্রাথমিকভাবে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা উদঘাটনের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।

লাইফ স্টাইল ডেস্ক :

মুখের দুর্গন্ধ খুবই অস্বস্তিকর বিষয়। অনেকের এই সমস্যা থাকলেও লজ্জায় বলতে চান না। তবে এই বিষয়টি সমাধানের জন্য একটি পাতাই যথেষ্ঠ। এই পাতাটির নাম হলো পুদিনা পাতা।

দাঁতের সুরক্ষায় ও মুখের দুর্গন্ধ দূর করতে এ পাতার জুড়ি নেই। খাবার কিংবা সালাদের স্বাদ বাড়াতে ব্যবহার করতে পারেন পুদিনা পাতা।

আসুন জেনে নেই পুদিনা পাতা খেলে যেসব স্বাস্থ্য উপকারিতা পাবেন-

২. ঠাণ্ডা- কাশির চিকিৎসায় পুদিনা পাতা খুব ভালো কাজ করে। এই পাতা খেলে নিঃশ্বাস নেয়া সহজ হয়।

৩. পুদিনা পাতার তৈরি তেল, অলিভ অয়েল কিংবা বাদামের তেল মাংসপেশির ব্যথা দূর করে। আক্রান্ত স্থানে মালিশ করলে মাংসপেশির ব্যথা অনেকটা কমে যায়।

৪. ব্রণের সমস্যা আক্রান্ত স্থানে পুদিনা পাতা বেটে লাগাতে পারেন। এ মিশ্রণটি ব্রণের সমস্যা কমাতে ভালো কাজ করে।

৫. বদহজম দূর করতে পুদিনা পাতার জুড়ি নেই। হজমে সমস্যা হলে পুদিনা পাতার চা খেতে পারেন।

সূত্র : হেলদিবিল্ডার্জড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

কাশ্মীরের অনন্তনাগে ডিসি অফিসের সামনে গ্রেনেড হামলা করা হয়েছে।

বিস্ফোরণে পুলিশসহ অন্তত ১৪ জন আহত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত কোনো সংগঠন এ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

অনন্তনাগের পুলিশের বরাতে সংবাদমাধ্যম টাইস অব ইন্ডিয়া জানায়, শনিবার ৫ অক্টোবর সকালে ভারতনিয়ন্ত্রিত দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে ডেপুটি কমিশনারের অফিসের সামনে শক্তিশালী গ্রেনেড হামলা হয়।

স্টাফ রিপোর্টার :

ক্যাসিনোকাণ্ডে আলোচিত যুবলীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী ওরফে সম্রাটের সাথে তার সহযোগী ও যুবলীগ ঢাকা দক্ষিণের সহসভাপতি এনামুল হক আরমানকেও গ্রেফতার করা হয়।

রোববার ভোর ৫টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের আলকরা ইউনিয়নের কুঞ্জুশ্রীপুর গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

জানা যায়,  আরমানের উত্থানটা ঘটে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম এলাকা থেকে। নোয়াখালী থেকে ঢাকায় এসে বায়তুল মোকাররমে লাগেজ বিক্রি করতেন তিনি। এর মাঝেই খালেদা জিয়ার নিকটাত্মীয় ‘বাউন্ডারি ইকবাল’ হিসেবে পরিচিত ইকবাল হোসেনের সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা বাড়ে।

ইকবালের মাধ্যমে হাওয়া ভবনে যাতায়াত শুরু করেন আরমান। সেই সময় ক্ষমতায় থাকা বিএনপির ছত্রছায়ায় মতিঝিল ক্লাবপাড়ায় প্রভাবশালী হয়ে ওঠেন তিনি । সেই প্রভাব খাটিয়ে বিএনপি আমলেই ফকিরাপুলের কয়েকটি ক্লাবের ক্যাসিনোর নিয়ন্ত্রণ নেন আরমান।

এর পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে যুবলীগে ভিড় জমান আরমান। সম্রাটের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা শুরু করেন। সম্রাটের বিভিন্ন অপকর্মে শামিল হন। সম্রাটকে মতিঝিল ক্লাবপাড়ার ক্যাসিনোবাণিজ্যে প্রবেশ করান তিনি। সম্রাটকে সামনে রেখে ক্যাসিনোবাণিজ্যের ক্যাশিয়ার হিসেবে কাজ করতে থাকেন।

সম্রাট ঢাকা দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি হলে সহসভাপতির পদটি বাগিয়ে নেন আরমান। নিজের টাকা দিয়ে তিনি প্রথমে ক্যাসিনোর সরঞ্জাম কিনে আনেন ঢাকায়।

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি :

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে পুকুরে পানিতে ডুবে তিন বোনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত মেহেরজান আক্তার (৫) ও মারিয়া আক্তার (৩) ওই গ্রামের মেরাজ শেখের দুই মেয়ে এবং তাদের ফুফাতো বোন ঝর্না আক্তার (৩) পার্শ্ববর্তী তপারকান্দি গ্রামের নুর আলমের মেয়ে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, সকালে পুকুর পাড়ে খেলতে যায় তিন শিশু। পরে তাদের কোনো সন্ধান না পেয়ে বাড়ির পাশের পুকুরে নেমে খুঁজতে থাকে পরিবারের সদস্যরা।

বরগুনা প্রতিনিধি, প্রাণের দেশ :

বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলায় ২০ মণ হরিণের মাংসসহ এক ব্যক্তিকে আটক করেছে কোস্টগার্ড। তার নাম আবদুস সোবহান (৫৬)।

শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বিহঙ্গ দ্বীপসংলগ্ন এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এ সময় ইঞ্জিনচালিত একটি নৌকাও জব্দ করা হয়েছে।

কোস্টগার্ড পাথরঘাটা স্টেশনের কমান্ডার লে. বিশ্বজিৎ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার বিহঙ্গ দ্বীপসংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রায় ২০ মণ হরিণের মাংসসহ ইঞ্জিনচালিত একটি নৌকা জব্দ করে কোস্টগার্ড।

এ সময় আবদুস সোবহান নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।

প্রাণের দেশ ডেস্ক:

ভ্রমণপ্রেমীদের আকর্ষণ করতে প্রথমবারের মতো পর্যটন ভিসা চালু করেছে সৌদি আরব। এবার জানা গেলো, বেড়াতে আসা বিদেশি নারী ও পুরুষকে একসঙ্গে হোটেল ভাড়া নেওয়ার অনুমতি দেবে দেশটির সরকার। এক্ষেত্রে স্বামী-স্ত্রী কিংবা অন্য সম্পর্কের প্রমাণ দিতে হবে না তাদের। সৌদি নারীরাও চাইলে হোটেল রুমে একা উঠতে পারবেন।

মুসলিমপ্রধান দেশের সঙ্গীহীন নারী ও অবিবাহিত বিদেশিদের সৌদি আরবে ভ্রমণ সহজ করতে এমন পদক্ষেপ নেওয়া হলো। যদিও উপসাগরীয় অঞ্চলটিতে বিয়ে ছাড়া যেকোনও নারী-পুরুষের এক ছাদের নিচে থাকা নিষিদ্ধ।

শুক্রবার (৪ অক্টোবর) প্রকাশিত আরবী ভাষার সংবাদপত্র ওকাজের এক প্রতিবেদনে খবরটি নিশ্চিত করেছে সৌদি পর্যটন ও জাতীয় ঐতিহ্য কমিশন। এতে বলা হয়, ‘পারিবারিক পরিচয়পত্র কিংবা সম্পর্কের প্রমাণাদি ছাড়া সৌদি নারী-পুরুষ একসঙ্গে হোটেলে চেক-ইন করতে পারেন না। তবে বিদেশি পর্যটকদের বেলায় এসবের প্রয়োজন নেই। এছাড়া সৌদিসহ সব দেশের নারীরা হোটেলে একা থাকতে পারবেন।’

গত সপ্তাহে ৪৯টি দেশের পর্যটকদের জন্য ভ্রমণের দুয়ার খুলে দেয় সৌদি আরব। তেল রফতানির ওপর থেকে অর্থনৈতিক নির্ভরতা কমিয়ে আনা ও পর্যটন খাতের বিকাশে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়। দেশটিতে নারী পর্যটকদের জনসমক্ষে পুরো শরীর ঢাকা পোশাক না পরলেও চলবে, তবে তা যেন শালীন হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখার আহ্বান জানান সৌদি আরবের পর্যটনমন্ত্রী আহমাদ আল-খতিব। অবশ্য মক্কা-মদিনায় অমুসলিম ও পুরো দেশে অ্যালকোহল নিষিদ্ধই থাকছে।

সৌদি পর্যটন ও জাতীয় ঐতিহ্য কমিশনের আশা, ২০৩০ সাল নাগাদ বছরে ১০ কোটি পর্যটক দেশটিতে বেড়াতে আসবেন। একইসঙ্গে পর্যটন খাতে ১০ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

এদিকে পর্যটনে বিদেশি বিনিয়োগ নিয়ে আশাবাদী পর্যটনমন্ত্রী আহমাদ আল-খতিবের। তার কথায়, ‘ইউনেস্কোর বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত পাঁচটি জায়গা, মনকে নাড়া দেওয়া সংস্কৃতি ও চোখধাঁধানো প্রাকৃতিক সৌন্দর্য আছে আমাদের। এগুলো দেখে পর্যটকরা চমকে যাবেন! বিশ্বের নিরাপদ শহরগুলোর মধ্যে অন্যতম আমাদের নগরগুলো। আশা করি, পর্যটকরা আমাদের সংস্কৃতির প্রতি সম্মান দেখাবেন।’

গত বছর নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সৌদি সরকার। এছাড়া এ বছরের আগস্টে বিদেশ ভ্রমণের অধিকার পান দেশটির নারীরা। সিনেমা হলেও হলিউডের ছবির প্রদর্শনী চলছে সেখানে।

২০১৭ সালে পর্যটন উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করে সৌদি সরকার। এর অংশ হিসেবে গত বছর রিয়াদের কাছে বিনোদনকেন্দ্রিক অঞ্চল গড়ার কাজ শুরু হয়। এতে থাকবে থিম পার্ক, মোটর স্পোর্টস সুবিধা ও সাফারি এলাকা।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস