শিরোনাম

স্পোর্টিং ক্লাবগুলোতে নজরদারির সুযোগ চায় ক্রীড়া মন্ত্রণালয়

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর বাজেট ধরা হয়েছে ৩০৬ কোটি টাকা

প্রকাশিত হয়েছে

স্পোর্টস রিপোর্টার, প্রাণের দেশ : 

স্পোর্টিং (ক্রীড়া) ক্লাবের নিবন্ধনসহ ক্লাবগুলোতে সব ধরনের নজরদারি প্রয়োজন। গত কয়েক দিন স্পোর্টিং ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনো পরিচালনার অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় এসব ক্লাবকে জবাবদিহিতার আওতায় রাখা জরুরি। তাই এসব ক্লাব যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অধীনেই থাকা উচিত বলে মনে করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ক্রীড়া ক্লাবগুলোতে ক্যাসিনো ব্যবসা থাকা দুঃখজনক। ক্লাবগুলো ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অধিভুক্ত নয় বলে তাদের ওপর নজরদারি করার সুযোগ নেই। রাজধানীর বেশিরভাগ ক্লাব লিমিটেড কোম্পানি হওয়ায় এগুলোর ওপরে নজরদারি করার এখতিয়ার নেই যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের। তবে সময় এসেছে আইন পরিবর্তনের।

আগামীতে যাতে তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা যায় সেজন্য আইন পরিবর্তন করে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। তিনি বলেন, যারা ক্যাসিনো ব্যবসায় জড়িত তাদের আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। কারণ, ক্রীড়া ক্লাবগুলো ক্যাসিনো ব্যবসায় জড়িত হওয়ায় ক্রীড়াঙ্গনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন উপলক্ষে মঙ্গলবার ১ অক্টোবর বিভিন্ন ফেডারেশনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে পর্যালোচনা সভা করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী। ওই সভায় আটটি ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এর মধ্যে ৩৯টি আন্তর্জাতিক এবং বাকিগুলো জাতীয়। এজন্য বাজেট ধরা হয়েছে ৩০৬ কোটি টাকা। রাষ্ট্রীয় তহবিল ও স্পন্সরদের সমন্বয়ে এই কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।

Calendder

January 2020
M T W T F S S
« Dec    
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

এখানে বিজ্ঞাপন দিন

%d bloggers like this: